স্ট্রেস কমাতে যা খাবেন

প্রতিবছর এপ্রিল মাসটি অবসাদ প্রতিরোধে সচেতনতাবিষয়ক মাস হিসেবে পালিত হয়। আধুনিক জীবনে এই এক ক্ষতিকর অনুষঙ্গ স্ট্রেস, হতাশা বা অবসাদ। জীবনে অতিমাত্রায় স্ট্রেস থাকলে তা ব্যক্তিগত জীবন ও ক্যারিয়ার বিপর্যস্ত করে দিতে পারে। ফিজিক্যাল কিংবা ইমোশনাল যেকোনও ধরনের স্ট্রেস মানুষের শরীরের জন্য ক্ষতিকর। শারীরিক অনেক ধরনের অসুখ-বিসুখের কারণ হয় স্ট্রেস। যেমন: হার্টের সমস্যা, মাথাব্যথা, আলসার, চেহারায় বয়সের ছাপ, উচ্চ রক্তচাপ, রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যাওয়া সহ বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়।

স্ট্রেস কমানোর জন্য কিছু খাবার খুব কার্যকরী। আসুন জেনে নেই স্ট্রেস কমায় এমন কিছু খাবারের কথা।

 

প্রোটিন

ডিমের সাদা অংশ, মাছ, চর্বি ছাড়া মাংস যেমন মুরগির মাংস, ডাল, সাগুদানা, পনির, শুকনো খেজুর- এই খাবারগুলোতে প্রচুর পরিমাণে অ্যামিনো অ্যাসিড আছে, যা স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে।

ভিটামিন বি
ছোলা, পালং শাক, কলা, ওটস, কাজু, তিল, মিষ্টি আলু, আলমন্ড মিল্ক এই খাবারগুলোতে আছে ভিটামিন বি। শরীর থেকে সেরোটনিন নিঃসরণ করে ভিটামিন বি। এই খাবারগুলো বিপাকে সাহায্য করে। ফুলকপি, বাদাম, স্ট্রবেরি, আনারস, সবুজ টমেটো, লেটুস নিয়মিত খেতে হবে। কারণ এগুলোতে রয়েছে ভিটামিন বি ও ভিটামিন সি। যা ক্লান্তি কাটাতে সাহায্য করে। স্ট্রেস ঝেড়ে ফেলতেও এই খাবারগুলো উপকারি।

 

জিঙ্ক
মসুর ডাল, চীনাবাদাম, মাশরুম, সয়াবিন, লাল আটার রুটি, সামুদ্রিক মাছ, গরু-খাসির কলিজায় জিঙ্ক থাকে। প্রতিদিন আমাদের শরীরের জন্য ১৫ মিলিগ্রাম জিঙ্ক প্রয়োজন হয়। খাদ্য তালিকায় জিঙ্কের অভাব হলে স্ট্রেস তৈরি হয়। শরীরে জিঙ্কের ঘাটতি পূরণের জন্য নিয়মিত এই খাবারগুলো খাওয়া উচিত।

 

ম্যাগনেসিয়াম
কলা, সবুজ শাক, লাউ, বেদানায় রয়েছে ম্যাগনেশিয়াম। অ্যাড্রিনাল গ্ল্যান্ডের কার্যকলাপ সক্রিয় রাখতে ম্যাগনেশিয়াম জাতীয় খাবার খাওয়া প্রয়োজন। যা মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে।

 

অন্যান্য খাবার
লেবু, পেয়ারা, কমলালেবু, সবুজ শাকসবজি, ডার্ক চকলেট, গাজর, তিলের বীজ ও নারকেল নিয়মিত খাবেন। অতিরিক্ত স্ট্রেস থেকে ফ্রি-র‌্যাডিক্যালসের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এই খাবারগুলো স্ট্রেস কমাতে সহায়তা করে।

 

যা খাবেন না
অতিরিক্ত স্ট্রেসের সময় ফাস্টফুড খাবেন না। এ সময় খাওয়ার গন্ডগোল থেকে ওজন বেড়ে যেতে পারে। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ফল, সবজি, প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট ও ফ্যাট জাতীয় খাবার ঠিক পরিমাণে না থাকলে স্ট্রেস আরও বেড়ে যেতে পারে।

 

আমাদের অনেকের মধ্যে একটি ভুল ধারণা আছে, বেশি পরিমাণে খেলে স্ট্রেস থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। কিন্তু আসল ব্যাপার হল, খুব বেশি পরিমাণে খেলে স্ট্রেস কমানোর বদলে তা বাড়িয়ে তোলে। তাই স্ট্রেস বেশি হলে পরিমাণমত খাবার খান ও ব্যায়াম করুন।

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

সড়ক দূঘর্টনায় সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উপ-ব্যবস্থাপক মঈনুল হোসেন নিহত

হজের গুরুত্ব ও তাৎপর্য

‌‌আমেরিকায় গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনা রয়েছে বলে সতর্ক করে মন্তব্য করেছে কানাডার একটি প্রতিষ্ঠান

বাংলাদেশি আমেরিকান অ্যাডভোকেসি ডে সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে : সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ

বাংলাদেশে ওয়াই-ফাই ৭ নিয়ে এলো হুয়াওয়ে

লড়াই করেও বাংলাদেশের হার, সুপার এইট নিশ্চিত করল দক্ষিণ আফ্রিকা

নেদারল্যান্ডস: বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার তারেক মুহাম্মদ

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মোদি

বিডিআরইএন ও হুয়াওয়ের আয়োজনে স্মার্ট এডুকেশন ওয়ার্কশপ

ফিতনা থেকে পলায়ন দ্বীনেরই একটি অংশ

১০

রুশ-নিয়ন্ত্রিত লুহেনস্ক এবং খেরসন অঞ্চলে ইউক্রেনের হামলায় ২৬ জন নিহত

১১

এক দশক পর বিরোধী দলনেতা পাচ্ছে ভারত, রাহুলের নামে প্রস্তাব পাশ

১২

স্ট্রেস কমাতে যা খাবেন

১৩

অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস পালন

১৪

মিশিগানে সংবর্ধিত হলেন এফবিসিসিআই এর পরিচালক ইশহাকুল হোসেন সুইট

১৫

জাতিসংঘে ৩ বছর মেয়াদি ইকোসোক নির্বাচনে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে জয়ী বাংলাদেশ

১৬

পাকিস্তানকে সুপার ওভারে হারিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাস

১৭

৬০০ ছক্কার রেকর্ড রোহিতের

১৮

সৌদি আরবে ঈদুল আজহা ১৬ জুন

১৯

ভারত: কে হচ্ছেন বিরোধীদলীয় নেতা?

২০