‌‌আমেরিকায় গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনা রয়েছে বলে সতর্ক করে মন্তব্য করেছে কানাডার একটি প্রতিষ্ঠান

কানাডার পলিসি আউটলুক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনা সম্পর্কে সতর্ক করে দিয়ে অটোয়াকে এই পরিস্থিতির পরিণতি মোকাবেলা করার জন্য প্রস্তুত হতে বলেছে।

 

কানাডিয়ান পলিসি আউটলুক ৩৭ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে বলেছে, ‘যদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মতাদর্শগত পার্থক্য বাড়তে থাকে এবং গণতন্ত্র দুর্বল হয় তাহলে অভ্যন্তরীণ উত্তেজনা আমেরিকাকে গৃহযুদ্ধের দিকে নিমজ্জিত করার সম্ভাবনা রয়েছে।’ পার্সটুডে ম্যাগাজিনের প্রতিবেদন অনুসারে, এই গবেষণায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য অন্যান্য পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে যেমন স্থানীয়ভাবে জৈবিক অস্ত্রের ব্যবহার এবং দুর্ভিক্ষ।

 

এই প্রতিবেদনটি উল্লেখ করে, আমেরিকান প্রকাশনা পলিটিকো লিখেছেন, ‘আমাদের প্রতিবেশী (কানাডা) আমাদের বাড়িতে সহিংস ঘটনা ঘটবে বলে তারা আশঙ্কা করছে এটা চিন্তার বিষয়! কানাডার রিপোর্ট চমকপ্রদ! এটা রিপাবলিকান বা ডেমোক্রেটিক পার্টির একটি কল্পনাপ্রসূত প্রতিবেদন নয়। তবে একটি বিদেশি এবং বন্ধুত্বপূর্ণ সরকারের কাছ থেকে এমন খবর বের হয়েছে যেটি আমেরিকার সমাজে জাতীয় বিভাজনের পরিণতির কথা বিবেচনা করছে।’

 

পলিটিকো জিজ্ঞাসা করতে থাকে আমেরিকা ও কানাডার জনগণের এই প্রতিবেদনটি কতটা গুরুত্ব সহকারে নেওয়া উচিত? প্রতিবেদনে শত শত বিশেষজ্ঞ এবং সরকারি কর্মকর্তাদের বিপর্যয়মূলক ঘটনাগুলোর মতামত পরীক্ষা করছে যা কানাডাকে প্রস্তুত করতে হতে পারে৷ তারপর সেগুলো কতটা ঘটতে পারে, কত দ্রুত ঘটবে এবং সেগুলো কতটা বিঘ্নিত হতে পারে তার উপর ভিত্তি করে পরিস্থিতিগুলিকে গুরুত্বপূর্ণ করে গড়ে তোলে।

 

কয়েক মাস ধরে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান এবং পশ্চিমা প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ করে আমেরিকার অভ্যন্তরীণ প্রতিষ্ঠানগুলো এদেশে গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনা সম্পর্কে সতর্ক করে আসছে।

বিভিন্ন প্রমাণ দেখাচ্ছে যে আমেরিকা একটি ‘ঘরোয়া শীতল যুদ্ধ’ থেকে “ঘরোয়া গরম যুদ্ধ বা সামরিক সংঘাতের দিকে চলে যাচ্ছে। ‘ঘরোয়া শীতল যুদ্ধ’ কয়েক বছর আগে শুরু হয়েছিল এমনকি সেটি ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে প্রবেশ করার আগেই শুরু হয়েছিল যখন আমেরিকার রক্ষণশীল এবং উদারপন্থীরা রাজনৈতিক সহনশীলতাকে ত্যাগ করেছিল এবং আমেরিকার রাজনৈতিক দৃশ্যপট থেকে একে অপরকে শারীরিকভাবে সরিয়ে দেওয়ার জন্য বাহিনীতে যোগ দিয়েছিল।

 

২০২১ সালের জানুয়ারিতে মার্কিন কংগ্রেসে ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার ফরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গৃহযুদ্ধের সম্ভাবনার গুজব তীব্র হয়।#

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

কোটা সংস্কার আন্দোলন: ঢাকার সংঘর্ষ চলছে

ট্রাম্পের রানিংমেট জেডি ভান্সের স্ত্রী ও ‘গুরু’ ভারতীয় নারী ঊষা কে?

সরকারের প্রতি এবার শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান ফলকার টুর্কের

ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি-সেক্রেটারি গভীর রাতে বোরকা পরে পালিয়েছেন

তবে কোপা ফাইনালে বেঞ্চে বসে কেন কাঁদছিলেন লিওনেল মেসি?

অবশেষে মেট্রোরেল কমপ্লিট এবার শাটডাউনেও চলবে : ডিএমটিসিএল

গাজায় ইসরায়েলি তিনটি বিমান হামলায় ৪৮ জন নিহত

দয়া করে আন্দোলন নিয়ে অস্পষ্ট পোস্ট করে অ্যাক্টিং করবেন না: সালমান মুক্তাদির

আগামীকাল থেকে পুরো বাংলাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’

আমি বিশ্বাস করি যে, ছাত্রসমাজ আদালত থেকে ঠিকই ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী

১০

টোল প্লাজায় আগুন, এখন রণক্ষেত্র যাত্রাবাড়ী

১১

এবার কোটা সংস্কার আন্দোলনে সহিংসতায় মর্মাহত শাকিব এবং চঞ্চল চৌধুরী

১২

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ভারতীয় ছাত্র সংগঠনগুলোর সংহতি

১৩

কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সরকার ‘প্রতিপক্ষ’ বানিয়েছে কেন?

১৪

যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি প্রধান: ট্রাম্পের সমাবেশ স্থলে নিরাপত্তা ৱক্ষায় ‘ব্যর্থতা’

১৫

প্রতিদ্বন্দ্বী ট্রাম্পকে হত্যার চেষ্টা হবার পর নির্বাচনী প্রচারণায় ফিরছেন বাইডেন

১৬

রিপাবলিকান সম্মেলনে ট্রাম্পের পাশে সাবেক প্রতিদ্বন্দ্বীরা

১৭

‘হায় হোসেন’ ‘হায় হোসেন’ ধ্বনিতে তাজিয়া মিছিল শুরু

১৮

ঢাবির হল না ছাড়ার সিদ্ধান্ত কোটা আন্দোলনকারীদের

১৯

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আঘাত করলে সরকার কঠোর হবেই: ওবায়দুল কাদের

২০