মতামত

মানুষ হও

“শায়েখ, মাওলানা, মুফতি, মুহাদ্দিস, আল্লামা হওয়া শর্ত নয়, শর্ত হচ্ছে মানুষ হওয়া।” (শায়েখ, নূরুল ইসলাম বারইগ্রামী,খলীফায়ে ঢালকানগরি)। ঠিক তদ্রুপভাবে, মাষ্টার, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, ব্যারিস্টার হওয়া ও শর্ত নয়, শর্ত হচ্ছে মানুষ হওয়া।

শুধু দু-হাত, দু-পা, নাক, মুখ, কান, মাথা এবং কথা বলতে পারার নামই মানুষ না। মানুষ হতে হলে বিশেষ কতগুলা গুণ থাকা লাগে। এগুলো না থাকলে প্রকৃত মানুষ হওয়া যায়না। দুর্ভাগ্যবশত, বর্তমানে আমাদের সমাজে কিছু-কিছু নামধারী, ডিগ্রিধারী আলেম রয়েছে, যারা আলেম হয়েছে ঠিকই কিন্তু মানুষ হতে পারেনি। কেননা এদের চলাফেরা, ব্যাবহার আচার-আচরণ, কথা-বার্তার ভাব-ভঙ্গি, এতটাই নিচুপ্রকৃতির যে, রীতিমত একটা চতুষ্পদ জন্তুকেও হার মানায়।

ওরা আলেম হয়েছে ঠিকই, কিন্তু ওদের ভেতরে ইলমের অহংকার এতই বেশি যে, সাধারণ শিক্ষিত মানুষ কে মানুষই বলতে চায়না। ওদের পাশে তো বসা দূরের কথা! অথচ কখনই এটা নববী আদর্শ নয়। ওরা আলেম হয়েছে ঠিকই, কিন্তু কথাবার্তা বলার সময় এমনভাবে কথা বলে মনে হয় যেন মুখ দিয়ে আগুনের টুকরো বাহির হচ্ছে, কথার মধ্যে নেই কোন নম্রতা, ভদ্রতা এবং সহনশীলতা।

ওরা আলেম হয়ছে ঠিকই, কিন্তু নিজের স্বার্থ রক্ষার জন্য ওদের সম্পর্ক থাকে সমাজের সব মুর্খ, সুদখোর, ঘুসখোর, বাটপারসহ নামধারী ঐ সকল নেতাদের সাথে। অথচ এদের বিরোধীতা করাই তাদের প্রধান কাজ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু, ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস, ঐ সব কুলাঙ্গারদের মাথায় এবং চরণে তেল দেয়াতেই তারা অভ্যস্ত, কেননা ওরা আলেম হয়েছে ঠিকই, কিন্তু এখনো মানুষ হতে পারে নি।

ওরা যে সমাজে বাস করে সেথায় যতো অশান্তি, কলহ, বিবাদ, ফিত্না-ফাসাদ, হিংসা-বিদ্বেষ, দুর্নীতি, চুগলখুরি, শাসননীতিতে সামজিক অনাচার- অত্যাচার সহ যাবতীয় অপকর্মের মূলে এই সব মুখোশধারী আলেমরাই থাকে। ওরাই সমজাটাকে জ্বালিয়ে-পুরিয়ে, ছারখার করে। ওথচ, তাদের মাধ্যমেই সমাজ শান্তিময় হওয়ার কথা ছিল, সমাজ হওয়ার কথা ছিল স্বর্গীয় এবং সুখময়। কিন্তু না! কেননা তারা আলেম হয়ছে ঠিকই, কিন্তু এখনো মানুষ হতে পারে নি।

ঠিক তদ্রূপভাবে, আমাদের সমাজে লক্ষ-কোটি নামধারী শিক্ষিত, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, ব্যারিস্টার বাহির হচ্ছেন। অথচ তারাই সমাজের সব অপকর্মের শীর্ষ তালিকায়। সুদখোর, ঘুসখোর, অন্যের হক্ব নষ্ট সহ যাবতীয় অসামাজিক, অমানবিক কাজ এই সব নামধারী শিক্ষিতদের দ্বারাই হয়ে থাকে। কেননা, ওরা শিক্ষিত হয়ছে ঠিকই, কিন্তু মানুষ হয় নি!

Back to top button