বেইজিংয়ের নাইটক্লাবে কোভিড সংক্রমণের পর নতুন করে কড়াকড়ি

চীনের রাজধানীতে একটি নাইটক্লাবের সাথে সম্পর্কিত কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের ফলে তাদের একটি প্রধান জেলায় স্কুল অনলাইনে স্থানান্তর করা হয়েছে। এদিকে ২ মাসেরও বেশি দীর্ঘ লকডাউন তুলে নেয়া সত্ত্বেও সাংহাইতে জীবনযাত্রা এখনো স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরেনি।

ভয়েস অফ আমেরিকা বাংলা এর এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার একজন সংক্রমিত ব্যক্তি সেখানে যাওয়ার পর শহরের কেন্দ্রস্থল গংটি নাইটলাইফ এলাকায় হেভেন সুপার মার্কেট ক্লাবের সাথে যুক্ত মোট ১৬৬টি কেস পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে ১৪৫ জন ছিলেন গ্রাহক, বাকিরা কর্মী বা অন্যান্য মানুষ যাদের সাথে গ্রাহকরা পরবর্তীতে যোগাযোগ করেছিলেন।

সংলগ্ন সানলিতুন শপিং এবং ডাইনিং কমপ্লেক্সসহ পুরো এলাকাটি পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ করে দেয়া হয়।

সাংহাইতে রেড রোজ বিউটি স্যালুনের পৃষ্ঠপোষকদের মধ্যে ৯ জুন কোভিড পজিটিভ সনাক্তকৃত ৩ জনের সংস্পর্শে এসেছেন ৫০২ জন । জড়িত ব্যক্তিরা ২৫ মিলিয়ন মানুষের শহর জুড়ে ১৫টি জেলা থেকে এসেছিলেন। ১ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে লকডাউন শেষ হওয়ার পর এটা আবার প্রথম বড় আকারের বিধিনিষেধ আরোপের ঘটনা।

সাম্প্রতিক প্রাদুর্ভাব সত্ত্বেও বেইজিং সোমবার ৫১টি নতুন কেস রিপোর্ট করেছে যার মধ্যে ২২টি উপসর্গহীন।

যথেষ্ট ব্যয়বহুল হওয়া সত্ত্বেও চীন তাদের “জিরো কোভিড” নীতি বজায় রেখেছে এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধানের দাবি, নীতিটি টেকসই নয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published.