মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে ফ্যাশন ও উন্নত প্রযুক্তির সমন্বয়ে পণ্য তৈরিতে জোর হুয়াওয়ের

স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে (এমডব্লিউসি) উন্নতমানের প্রযুক্তিপণ্য প্রদর্শন করেছে হুয়াওয়ে। হাই-এন্ড, ফ্যাশন-ফরওয়ার্ড ও প্রযুক্তিবান্ধব এসব ফ্ল্যাগশিপ পণ্য অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের মাঝে আগ্রহ তৈরি করেছে। বিশেষ করে হুয়াওয়ে মেট ৬০ আরএস আলটিমেট ডিজাইন, হুয়াওয়ে ফ্রিক্লিপ এবং হুয়াওয়ে ওয়াচ জিটি ৪ দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে। এর মাধ্যমে হুয়াওয়ে বিশ্বব্যাপী ব্যবহারকারীদের মাঝে উদ্ভাবনী পণ্য ও সেবা আরও সহজলভ্য করার পাশাপাশি তাঁদের আধুনিক, ভবিষ্যতমুখী ও ব্যক্তিগত রুচি অনুযায়ী ফ্যাশন চাহিদা মিটাতে পারবে।

যুগান্তকারী স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে আসার ক্ষেত্রে হুয়াওয়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাবে এবং সবার জন্য বিজ্ঞানভিত্তিক স্মার্ট সলিউশন ব্যবহারের সুযোগ সৃষ্টি করবে। এক্ষেত্রে হুয়াওয়ের স্মার্ট উইয়ারেবলসে ব্যবহারকারীদের স্বাস্থ পর্যবেক্ষণে মূল বিষয়গুলিকে আরও গুরুত্ব দেয়া হবে। এ জন্য গবেষণা ও উন্নয়ন খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে গ্রাহকদের জন্য যুগান্তকারী সুবিধা আনতে কাজ করবে হুয়াওয়ে।

এই প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে ২০২৪ সালে হুয়াওয়ে এই তিনটি বিষয়কে অগ্রাধিকার দেবে: ঘুম, রক্তচাপ ও মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষা।

উল্লেখ্য, গত বছরে হুয়াওয়ে কনজিউমার বিজনেস গ্রুপ উল্লেগযোগ্য অগ্রগতি আর্জন করেছে। এই সময়ে হাই-এন্ড,ফ্যাশন-ফরওয়ার্ড ও প্রযুক্তিচালিত আকর্ষণীয় সব পণ্য এনে ওয়ারেবল (পরিধেয়), অডিও, ট্যাবলেট, পার্সোনাল কম্পিউটার এবং স্মার্টফোনের বাজারে যুগান্তকারী ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এসব ফ্ল্যাগশিপ পণ্য উন্মোচনের জন্য ইতোমধ্যে ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকা, ল্যাটিন আমেরিকা এবং এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে হুয়াওয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে যা আন্তর্জাতিক বাজারে হাই-এন্ড প্রযুক্তিপণ্যের প্রসারে হুয়াওয়ের প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন।২০২৩ সালে হুয়াওয়ে মেট ৬০ সিরিজ ও হুয়াওয়ে মেট এক্স৫-সহ বেশকিছু ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন বাজারে এনেছে।

এগুলি হাই-এন্ড প্রযুক্তি পণ্যের বাজারে হুয়াওয়েকে বড় ভূমিকা পালনে সহযোগিতা করেছে। একই সঙ্গে এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বাজারে হুয়াওয়ে প্রযুক্তি খাতে নিজেদের সক্ষমতা প্রমাণে সক্ষম হয়েছে।কাউন্টার পয়েন্ট রিচার্স যারা বিশ্বব্যাপী প্রযুক্তি পণ্যের বাজার নিয়ে গবেষণা করে তারা বলছে, বৈশ্বিক হাই-এন্ড স্মার্টফোনের বাজারে ২০২৩ সালে হুয়াওয়ে এর মার্কেট শেয়ার পাঁচ শতাংশ বাড়িয়ে সব ব্র্যান্ডের মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে।

 

এছাড়া ২০২৪ সালের প্রথম দুই সপ্তাহে চীনের বাজারে স্মার্টফোন বিক্রিতে প্রথম অবস্থানে ছিল হুয়াওয়ে। ২০২৩ সালে আন্তর্জাতিক বাজারে হুয়াওয়ের স্মার্ট ওয়ারেবল পণ্য সরবরাহ ১৫ কোটি ছাড়িয়েছে। আর টানা পাঁচ বছর চীনের স্মার্ট ওয়াচের বাজারে নিজেদের প্রথম স্থানে রাখতে সক্ষম হয়েছে হুয়াওয়ে। এছাড়া হুয়াওয়ের হেলথ অ্যাপের ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৪৫ কোটি ছাড়িয়েছে। ২০২৩ সালে অর্থাৎ প্রথম ট্যাবলেট বাজারে নিয়ে আসার এক দশক পর হুয়াওয়ে ১০ কোটির বেশি ট্যাবলেট রপ্তানি করতে সক্ষম হয়েছে।

এবার মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে হুয়াওয়ে ঘোষণা দিয়েছে যে, প্রতিষ্ঠানটি ২০২৪ সালে পেপারম্যাট ডিসপ্লে এবং নিয়ারলিংক প্রযুক্তিকে অগ্রাধিকার দিয়ে ডিজিটাল ক্রিয়েশনে এর বিনিয়োগ বাড়াতে থাকবে। এর ফলে গ্রাহকদের আরও উন্নত ডিজিটাল ক্রিয়াশনের অভিজ্ঞতা প্রদান করা সম্ভব হবে। হুয়াওয়ের হোস্ট করা গোপয়েন্ট অ্যাক্টিভিটিকে আরও দেশ ও অঞ্চলে পৌঁছে দেওয়ার জন্য উন্নত করা হবে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ডিজিটাল

 

আর্ট কমিউনিটির কাছে এটি তখন আরও বেশি কার্যকর হয়ে উঠবে। ২০২৪ একটি গুরুত্বপূর্ণ বছর হতে চলেছে হুয়াওয়ের জন্য। এই বছরে ফ্যাশন-ফরোয়ার্ড ও প্রযুক্তি-চালিত পণ্য, পরিষেবা ও অভিজ্ঞতাকে বিশ্বব্যাপী ব্যবহারকারীদের কাছে আরও সহজলভ্য করে তোলার পাশাপাশি উদ্ভাবনী প্রযুক্তির গবেষণা ও উন্নয়নে বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে এই খাতের জন্য এক নতুন মানদণ্ড স্থাপন করবে হুয়াওয়ে।


by

Tags: