আবুল কাসেম
২৪ জানুয়ারী ২০২৪, ৩:০৫ অপরাহ্ন
অনলাইন সংস্করণ

অব্যবহৃত ইলেকট্রিক যন্ত্রাংশের সার্কিট বোর্ড দিয়ে স্বর্ণ তৈরির পদ্ধতি আবিস্কার

পুরোনো অথবা নষ্ট হওয়া ইলেকট্রিক যন্ত্রাংশ দিয়ে শত শত কেজি সোনা তৈরির এক পেটেন্ট আবিষ্কার করেছে যুক্তরাজ্যের রয়্যাল মিন্ট নামের একটি কোম্পানি যা শুনলে চমকে যাবে যে কেউ।
ইলেকট্রনিক বর্জ্য প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে প্রযুক্তির এই যুগে। এসব ই-বর্জ্যের ভেতরে লুকোনো মূল্যবান ধাতুগুলো বের করে নিয়ে আসার পদ্ধতি আবিষ্কার করেছে উক্ত ব্রিটিশ কোম্পানিটি। যেই কোম্পানিটি আবার যুক্তরাজ্যের সরকারি মুদ্রা তৈরির কাজ করে যাচ্ছে বিগত ২ বছর যাবৎ।
কোম্পানির কেমেস্ট্রি টিম কানাডিয়ান স্টার্ট-আপ এক্সিরের সঙ্গে এমন একটি পেটেন্ট আবিষ্কারের দাবি করেছে যা দিয়ে পুরানো ইলেকট্রিক যন্ত্রাংশ যেমন কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইল ও অন্যান্য এক্সেসরিজ এর ভেতরের সার্কিট বোর্ডগুলো থেকে ৯৯ শতাংশ সোনা বের করছেন তারা। কিন্তু এই প্রক্রিয়াটি এখনো পুরোদমে চলো হয়নি যা চলো হয়ে গেলে শত শত কিলোগ্রাম সোনা উৎপাদনে সক্ষম হবে ওই প্রতিষ্টানটি।

যদিও এই পেটেন্টটি গুপন রাখা হয়েছে তার পরেও তাদের ডেমো ল্যাবরেটরির এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘ম্যাজিক গ্রিন দ্রবণ’ নামক একধরণের ধরণ তারা তৈরী করা হয় যা খণ্ডিত সার্কিট বোর্ডের সঙ্গে মিশ্রণের পরই সোনা তৈরির প্রক্রিয়াটি শুরু হয়। প্রথমে ওই মিশ্রণে থাকা সোনা দ্রবীভূত হয়ে তরল আকারে বেরিয়ে আসে মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই। সেই প্রক্রিয়া ২০ বার প্রয়োগের ফলে দ্রবীভূত সোনার ঘনত্ব বেড়ে যায় যা ফিল্টার করার পর একটি বিশেষ চুল্লিতে গলিয়ে নাগেটের আকার দেওয়া হয়- যেগুলো দিয়ে কানের দুল, নেকলেস ও অন্যান্য অলঙ্কার তৈরি করা যায়।

টনি বেকার, কোম্পানিটির ম্যানুফ্যাকচারিং ইনোভেশনের পরিচালক, বলেন,পরিত্যক্ত ইলেকট্রনিক সামগ্রী সংগ্রহ করে সার্কিট বোর্ডগুলো যান্ত্রিকভাবে আলাদা করে সোনাবিহীন অংশগুলো সরিয়ে ফেলা হয় তারপরে ইউএসবি পোর্টের মতো সোনাবহনকারী অংশগুলোকে ৫০০ লিটারের চুল্লিতে পাঠানো হয় এবং সেখানেই ম্যাজিক গ্রিন দ্রবণ যোগ করা হয়। তারপরে সেগুলি পরবর্তী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সোনার নাগেটে পরিণত হয়।

 

 

 

 

Facebook Comments Box

মন্তব্য করুন

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

লেখক ইশতিয়াক রুপু’র স্মৃতিচারনমূলক গদ্যের বই ‘জলজোছনার জীবনপত্র’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে ফ্যাশন ও উন্নত প্রযুক্তির সমন্বয়ে পণ্য তৈরিতে জোর হুয়াওয়ের

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আসন্ন সিরিজের জন্য অনুশীলন শুরু করেছে বাংলাদেশ দল

প্রবাসে দলাদলি, মারামারি, রক্তারক্তি আর কত? এতে বাঙালি কমিউনিটির ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে

মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করার পরামর্শ বিশ্বব্যাংকের (এমডি) অ্যানা বেজার্ড এর

বিপিএল এর কিছু প্লেয়ার এর যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন কোচ হাথুরু

বসে বসে কাজ, ডেকে আনে সর্বনাশ

বড়লেখায় ভাষা শহীদদের প্রতি নিসচা’র শ্রদ্ধা নিবেদন: নানাবিধ কর্মসূচি গ্রহণ

প্রতিদিন শ্যাম্পু করা ও হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার কি চুলের ক্ষতি করে?

রাতে ঘন ঘন প্রস্রাবের কারণ কী?

১০

যেসকল দেশের নাগরিকরা ভিসা ছাড়া উমরাহ পালন করতে পারবেন

১১

বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলো আর্জেন্টিনা

১২

হার্ট সতেজ রাখতে প্রয়োজন খাদ্যভ্যাসে ৫টি পরিবর্তন

১৩

মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়ানোর উপায়

১৪

টং টং: বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা শিশু

১৫

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি: ২ বাংলাদেশি যুবক নিহত

১৬

রাশিয়ায় কারাবন্দী বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনির মৃত্যু

১৭

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড: নতুন চুক্তিতে সাকিব-শান্তদের বেতন

১৮

পাকিস্তানের নির্বাচনে যেভাবে ভূমিকা বদল হল ইমরান খান ও নওয়াজ শরিফের

১৯

মিয়ানমার সংকট: চীন-ভারতের স্বার্থ আর বাংলাদেশের কূটনৈতিক চ্যালেঞ্জ

২০