প্রচ্ছদ

ভারতীয় থেকে আসা মহিষের তাণ্ডবে আহত ১৫

১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:২৮

জেলা প্রতিনিধি

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ ভারত থেকে আসা মহিষের হামলায় ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যানসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। বুধবার (১৬ অক্টোবর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার ভোলাগঞ্জ, পাড়ুয়া, কাঁঠালবাড়ি, লম্বাকান্দি গ্রামে তাণ্ডব চালায় পাগলা মহিষটি।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন- রিয়াজ আলী (৭০), আবুল হাসেম (৫৫), মাওলানা জামাল উদ্দিন (৩৫), আবুল কালাম (২৫) ও আব্দুল গণি (৫৫)। তাদের মধ্যে মাওলানা জামাল উদ্দিন ও আবুল হাসেমকে গুরুতর অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় একটি পাগলা মহিষ বাংলাদেশের লোকালয়ে ঢুকে পড়ে। একপর্যায়ে ভোলাগঞ্জ, শাহ আরেফিন বাজার ও পাড়ুয়া এলাকার লোকজন মহিষটিকে আটকের চেষ্টা করলে অন্তত ৭ জন আহত হন। এরপর মহিষটি কাঁঠালবাড়ি ও লম্বাবাড়ি গ্রামে ঢুকে আরও ৭ জনকে আহত করে।

এ অবস্থায় সকাল ১০টার দিকে উত্তর রণিখাই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নজির উদ্দিন তার লাইসেন্স করা বন্দুক দিয়ে মহিষটিকে গুলি করেন। কিন্তু তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় মহিষের হামলায় তিনিও আহত হন। পরে দুপুর পৌনে একটায় কাঁঠালবাড়ি লম্বাকান্দি এলাকায় উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি হাজি সিকন্দর আলী নিজের লাইসেন্স করা বন্দুক দিয়ে চার রাউন্ড গুলি করলে মহিষটি দুর্বল হয়ে পড়ে। এরপর এলাকাবাসী মহিষটিকে ধরে জবাই করেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, মহিষটির আক্রমণে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এরপর দুপুরে স্থানীয়রা মহিষটিকে লাইসেন্স করা বন্দুক দিয়ে গুলি করে জবাই করেছেন বলে শুনেছি।



এ সংবাদটি 29828 বার পড়া হয়েছে.
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

আমাদের মোবাইল এপ্পসটি ডাউনলোড করুন