প্রচ্ছদ

বর্ণাঢ্য পরিসরে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ২৭  তম এশিয়ান ফুড ফেয়ার এবং কালচারাল শো 

০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২৩:৫১

 নাজমুস সাকিব, ফ্লোরিডা থেকে
আগামী ১৪ ও ১৫ ই মার্চ ফ্লোরিডার নৈসর্গিক শহর ওয়েস্ট পাম বিচ এর সাউথ ফ্লোরিডা ফেয়ার গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এশিয়ান ফুড ফেয়ার এবং কালচারাল শো এর ২৭ তম আসর। বরাবরের মতো এবারেও চোখ ধাঁধানো সব আয়োজনে এশিয়ার ১৫টিরও অধিক দেশের অংশগ্রহণে এই মেগা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। দু’দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে ২০  হাজারেরও বেশি দর্শক সমাগমে অনুষ্ঠান প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে বলে আয়োজকরা আশা করছেন। 
 
আয়োজক সংগঠন হিসেবে থাকছে ফ্লোরিডার প্রাচীনতম সাংস্কৃতিক সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ ফ্লোরিডা। প্রায় পাঁচ শতাধিক শিল্পীর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত এই সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে বাংলাদেশের কৃষ্টি এবং সংস্কৃতিকে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিশেষ করে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার পাশাপাশি এশীয় ভুক্ত দেশ সমূহের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডকে আমেরিকার মূলধারার মানুষজনের কাছে পরিচিত করে তোলাও এই আয়োজনের উদ্দেশ্য। 
 
সম্প্রতি পেমব্রক পাইনেস এ অবস্থিত মোঘল রেস্তোরায় আসন্ন এশিয়ান ফেয়ার এর সামগ্রিক কার্যক্রম তুলে ধরে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। সভায় আসন্ন এশিয়ান ফেয়ার এর সিনিয়র উপদেষ্টা এবিএম গোলাম মোস্তফা বলেন, “দু’দিনে প্রায় 20 ঘণ্টা বিরতিহীন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালিত হবে আমাদের এবারকার আয়োজনে। জাপানের টাইকো ড্রাম, চীনের খ্যাতনামা লায়ন ড্যান্স, কোরিয়ান নৃত্য, চাইনিজ মার্শাল আর্ট, কোরিয়ান টাইকুন্ডু, থাই ফোক ডান্স, ইন্দোনেশিয়ান বালিনিজ ডান্স, মধ্যপ্রাচ্যের নৃত্য, ভিয়েতনামি নৃত্য, ইসরাইলি নৃত্য, বাংলাদেশ ভারত ও পাকিস্তান সহ আরো অনেক এশিয়ান দেশের নৃত্য পরিবেশিত হবে এই অনুষ্ঠানে। ম্যাজিক শো ও অ্যাক্রোবেট এর মতো চোখধাঁধানো অনুষ্ঠানও এতে পরিবেশিত হবে।”
 
 এই মেগা সাংস্কৃতিক শোর আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে সান্ধ্যকালীন সংগীত পরিবেশনা। অনুষ্ঠানের সভাপতি এম রহমান জাহির এ সম্পর্কে বলেন, “বাংলাদেশ থেকে কিংবদন্তি সঙ্গীতশিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ সহ ভারত থেকে আগত ইন্ডিয়ান আইডল এর বিশাল এবং সারেগামাপা খ্যাত ঐশ্বরিয়া সঙ্গীত পরিবেশন করবেন আমাদের এবারের আয়োজনে। উত্তর আমেরিকার বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে খ্যাতনামা সাংস্কৃতিক দল এই কালচার শোতে অংশগ্রহণ করবে এবং তাদের পরিবেশনা নিঃসন্দেহে আমাদের উপস্থিত দর্শকদের আনন্দ দেবে।” 
 
২৭ তম এশিয়ান ফেয়ার এর আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ইফতেখার চৌধুরী রিংকু বলেন,  “বিপুল দর্শকদের উপস্থিতিতে এই মেলায় অংশগ্রহণ করে থাকেন ফ্লোরিডা ছাড়াও উত্তর আমেরিকার বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে বহু গণ্যমান্য ব্যক্তিরা। বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী নিয়ে  একশোরও অধিক স্টল বসে এই মেলায়। বহু রকমারী সুস্বাদু খাবারের প্রাণবন্ত আয়োজনে  ইন্টারন্যাশনাল ফুড কোর্ট উপচে পড়া দর্শকের ভিড়ে সরগম হয়ে ওঠে। সব বয়সী লোকদের জন্য রয়েছে এই মেলায় কিছু না কিছু আয়োজন। ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের জন্য রয়েছে বিশেষ কার্নিভাল রাইডস। এছাড়াও বহু বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় এই মেলায়।বরাবরের মতো এবারও বাংলাদেশ মোবাইল কনস্যুলেট অফিস খোলা হবে এই মেলায় যা থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিরা কনস্যুলার সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।”
 
এছাড়াও এবারকার আয়োজনের মিডিয়া পার্টনার, প্রিন্ট মিডিয়া পার্টনার, ইউটুব পার্টনার সহ আরো নানা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন প্রধান উপদেষ্টা মোহাম্মদ এমরান, সিনিয়র উপদেষ্টা আরিফ আহমদ আশরাফ, সিনিয়র উপদেষ্টা রানা হক ,সিনিয়র উপদেষ্টা আবদুল ওয়াহেদ মাহফুজ ,উপদেষ্টা রফিকুল হক, উপদেষ্টা এমরানুল হক চাকলাদার,কনভেনার মাজহারুল ইসলাম, কো কনভেনার মোহাম্মদ শাহেদ, কো কনভেনার আলমগীর কবির, জয়েন্ট সেক্রেটারি মোঃ খোরশেদ, মুলশারি খানম প্রমুখ, আওয়ালে দয়ান প্রমুখ।
 
ইভেন্ট সুপারভাইজার ইমরান জনি বলেন, “দক্ষিণ ফ্লোরিডায় ইতিমধ্যে ফ্রেন্ডস ভিডিও প্রোডাকশন বেশ সুনামের সাথে এখানকার বাংলাদেশিদের সাংস্কৃতিক কার্যক্রম তাদের ইউটুব চ্যানেলের মাধ্যমে সারা বিশ্বের বাংলা ভাষাভাষী মানুষের কাছে পৌছিয়ে দিচ্ছে। ফ্রেন্ডস ভিডিও প্রোডাকশনকে তাই ইউটুব পার্টনার করতে পেরে আমরা আনন্দিত। পাশাপাশি স্যাটেলাইট চ্যানেল এনটিভি বরাবরের মতোই আমাদের মিডিয়া পার্টনার হিসেবে থাকছে।”
 
এশিয়ান ফেয়ার এ বাংলাদেশের কীর্তিমান শিল্পীদের সবসময় এশিয়ান ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড দিয়ে সম্মানিত করার প্রয়াস গ্রহণ করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় এবারেও এশিয়ান ফেয়ার 2020 অ্যাওয়ার্ড ঘোষণা করা হয়েছে। ।বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মের উদীয়মান কণ্ঠশিল্পী মাহাতিম সাকিব জুড়ি বোর্ড এর সিদ্ধান্তে এই পুরস্কার অর্জন এর জন্য মনোনীত হয়েছেন। 
প্রধান উপদেষ্টা মোঃ এমরান এশিয়ান খাদ্য মেলা ও সাংস্কৃতিক শোকে সফল করার জন্য সকলের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান। আয়োজক সংগঠন এর সভাপতি এম রহমান জহির বলেন “এশিয়া সহ বিভিন্ন দেশের সংস্কৃতিকে বিশেষ করে বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে মূলধারার  আমেরিকার সংস্কৃতির সামনে তুলে ধরতে আমাদের এই প্রয়াস অব্যাহত থাকবে এবং আমাদের এই প্রয়াসে সবাইকে শরিক হবার আমন্ত্রণ  জানাচ্ছি।” 
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

আমাদের মোবাইল এপ্পসটি ডাউনলোড করুন