প্রচ্ছদ

এক কেন্দ্রের ৯০৭ জন এসএসসি পরীক্ষা দিল ভিন্ন প্রশ্নপত্রে

০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৪:১৮

banglashangbad.com

টাঙ্গাইলে এসএসসি বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় শহরের একটি কেন্দ্রে ভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরীক্ষার প্রথম দিন সোমবার সকালে এ ঘটনায় পরীক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। টাঙ্গাইল শহরের বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

পরীক্ষার্থীদের অভিযোগ, টাঙ্গাইলের সকল কেন্দ্রে বাংলা প্রথম পত্র সৃজনশীল পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ৩ (সোয়াত) নম্বর সেটে অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু ব্যতিক্রম ঘটে বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে। এ কেন্দ্রের পরীক্ষার্থীদের ১ (কাশ্মীর) নম্বর সেটে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। তাদের অভিযোগ অপেক্ষাকৃত কঠিন প্রশ্নপত্রে তাদের পরীক্ষা দিতে হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, এসএসসি পরীক্ষার মতো এত বড় পরীক্ষা কি হেলাফেলার বিষয়?

ওই কেন্দ্রের ২০৯ নম্বর হলের পরীক্ষার্থী আল আমিন বলেন, পুরো টাঙ্গাইলে এক প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা হয়েছে। অথচ বিন্দুবাসিনী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে আমরা আলাদা প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিয়েছি। এটা মানা যায় না। ভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেয়ার ঘটনায় অভিভাবকরাও ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

অভিভাবক সালমা আক্তার বলেন, ওই স্কুল কর্তৃপক্ষ দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছেন। জীবনের সবচেয়ে বড় পরীক্ষা এটা। এখানে এ রকম ভুল মেনে নেয়া যায় না। এ নিয়ে বাচ্চারা মানসিক অশান্তিতে থাকবে।

এ প্রসঙ্গে কেন্দ্র সচিব ও বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল করিম মিয়া জানান, বোর্ডের ম্যাসেজ পেয়ে সেটি সংশ্লিষ্ট সবাইকে পাঠানো হয়। কিন্তু ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ম্যাসেজ ভুল দেখেছেন। তিনি ৩ নম্বর সেটের পরিবর্তে ১ নম্বর সেট দিয়ে পরীক্ষা নিয়েছেন। পরীক্ষা শেষে বিষয়টি ধরা পড়ে। ওই কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ৯০৭ জন।

তিনি বলেন, বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তারা এ প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দেয়া খাতাগুলো আলাদা করে নিরাপদ হেফাজতে রেখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যসহ বোর্ডে পৌঁছে দেবে। এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের চিন্তার কোনো কারণ নেই।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

আমাদের মোবাইল এপ্পসটি ডাউনলোড করুন