প্রচ্ছদ

ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে দুটি সেমিস্টারের ওরিয়েন্টেশন

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ২২:২৪

বাংলা সংবাদ ডেস্ক

‘তোমরা এখন সবাই  কানেকটেড। এই বয়সে নানা রকম অনুভুতি কাজ করে। এই সময়টাতে বন্ধু খোঁজার বাসনা, ভালবাসা পাওয়ার ইচ্ছে – কোনোটাকেই অস্বীকার করা যাবে না। অনেক তৃষ্ণা তোমাদের আছে। কিন্তু সব তৃষ্ণার চেয়ে বড় হলো আমাদের দেশ।‘ বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অবস্থিত ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেয়ার সময় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড মশিউর রহমান এসব কথা বলেছেন।

ফল ২০২১ ও স্প্রিং ২০২২ সেমিস্টারে ভর্তি হওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানটি আজ ১২ ফেব্রুয়ারি শনিবার বেলা ১১ টায় ইউনিভার্সিটির ফেসবুক পেইজ  থেকে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বলেন, ‘তোমার কাছে থাকা মোবাইল নামক ডিভাইসটি তোমাদের জন্য নতুন পৃথিবী। সেখানে তোমরা নতুন নতুন বন্ধু খুঁজছো। ডিজিটালি একে অপরের কাছাকাছি যাওয়ার প্রাণপন চেষ্টা করে যাচ্ছ। এর মধ্য দিয়ে আমরা একটা নতুন পৃথিবী দেখছি। এর সবকিছু হলো বাস্তবতা। কিন্তু তোমার যেমন তৃষ্ণা আছে, দেশেরও কিছু তৃষ্ণা আছে। তোমরা বন্ধুত্ব নিয়ে থাকবে ঠিকই। কিন্তু তার মধ্য দিয়ে দেশের জন্য কাজ করে যেতে হবে’।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধাপক ড সহিদ আকতার হুসাইন বলেন, ফেব্রুয়ারি হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও মহান শহীদ দিবসের মাস। ১৯৫২ সালে বাংলা ভাষার জন্য জীবনদানকারী শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বাংলাদেশের সব বড় অর্জনই এসেছে রক্তের বিনিময়ে। বাঙালির এই গর্বের বিষয়গুলো তোমাদের অন্তরে ধারণ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বাণিজ্য অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড মোঃ আব্বাস আলী খান, আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড মোঃ আনোয়ার জাহিদ, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলোজি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড মোঃ মাহফুজুর রহমান এবং ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান রওশন আরা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন রেজিস্ট্রার ড আবুল বাশার খান। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নাজলা ফাতমি।

শেয়ার করুন

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

আমাদের মোবাইল এপ্পসটি ডাউনলোড করুন