প্রচ্ছদ

মাত্র চার পাতার গাছটির দাম ৪ লাখ ৬৩ হাজার টাকা

০৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:১০

banglashangbad.com

গাছটি আকারে এক হাতও লম্বা নয়। রয়েছে মাত্র চারটি পাতা। তবে নিলামে তার দাম উঠল চার লাখ ৬৩ হাজার টাকা! এ দাম শুনে যে কারো পিলে চমকে যাবে। কিন্তু কেন এত দাম পুঁচকে একটা গাছের?

সাড়ে চার লাখ টাকায় একটা গাড়ি কিনতে পারবেন আপনি, অথবা বিদেশে ঘুরতে যেতে পারবেন। কিন্তু সেখানে সেই পরিমাণ টাকা দিয়ে ছোট্ট একটা গাছ কিনেছেন নিউজিল্যান্ডের এক ব্যক্তি। গাছটির নাম ফিলোডেন্ড্রন মিনিমা। স্থানীয় মুদ্রায় যার দাম আট হাজার ১৫০ নিউজিল্যান্ড ডলার।

ছোট্ট এই ইন্ডোর প্লান্টটি আসলে একটি বিরল ভ্যারাইটি। গাছটিতে মাত্র চারটি পাতা রয়েছে। কিন্তু প্রতিটি পাতায় অদ্ভুতভাবে হলুদ রঙের ছোপ রয়েছে। তা-ও আবার একেবারে মাঝখান দিয়ে। পাতার অর্ধেকটা সবুজ আর ঠিক অর্ধেকটা হলুদ। এমন রং এই গাছে কখনো দেখা যায় না । ‘ট্রেড মি’ বলে একটি অনলাইন ট্রেডিং সাইটে এই গাছটি কিনতে তাই হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। শেষ পর্যন্ত নিলাম শেষ হয় চার লাখ ৬৩ হাজার টাকায়।

ট্রেডিং সাইটে লেখা হয়, গাছটি কৃত্রিমভাবে রং করা হয়নি। সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক পদ্ধতিতেই এমন বিরল রং পেয়েছে এটি। এই গাছটি প্রসঙ্গে এক পরিবেশবিদ জানান, এ ধরনের গাছের সবুজ অংশে সালোকসংশ্লেষ হয় এবং হলুদ অংশে শর্করা তৈরি হয়।

জানা গেছে, মোট তিনজন মিলে এই গাছটি কিনেছেন। তাঁদেরই একজন জানান, ‘‌আমরা আসলে তিনজনে মিলে এই গাছটি কিনেছি। এরপর একটি সুন্দর ট্রপিক্যাল বাগান তৈরি করা হবে। তাতে এ রকম বিরল প্রজাতির গাছ থাকবে। এ ছাড়া পাখি এবং প্রজাপতিও থাকবে। আর সেই বাগানের মাঝে থাকবে একটি রেস্তোরাঁ। শুধু নিউজিল্যান্ডে নয়, গোটা বিশ্বে এ রকম ট্রপিক্যাল বাগান আর কোথাও হয়তো দেখা যাবে না।’

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

আমাদের মোবাইল এপ্পসটি ডাউনলোড করুন