প্রচ্ছদ

‘বন ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণের স্বার্থেই লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক নির্মাণ করা হবে’

৩০ আগস্ট ২০২১, ১২:৩৮

বাংলা সংবাদ ডেস্ক

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বলেছেন, মৌলভীবাজারের পাথারিয়া পাহাড় ও সংলগ্ন বন ও বন্যপ্রাণী সুষ্ঠুভাবে সংরক্ষণের স্বার্থেই লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক স্থাপন করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, এখানে বসবাসকারীদের উচ্ছেদ না করে এবং সকলের জন্য কল্যাণকর ব্যবস্থা রেখেই এ সাফারি পার্ক স্থাপন করা হবে।

মৌলভীবাজারের বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলায় মৎস্য সপ্তাহ উদবোধন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ঢাকাস্থ সরকারি বাসভবন হতে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক স্থাপনের বিরোধিতাকারীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, “স্থানীয় জনগণ ঐক্যবদ্ধ থাকলেও পরিবেশবাদী দাবিকারী কেউ কেউ এর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে, স্থানীয় জনগণকে উস্কানি দিচ্ছে।”

তিনি বলেন, এখানে সাফারি পার্ক নির্মিত হলে মানুষের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে।

মন্ত্রী বলেন, “স্থানীয় জনগণকে সঙ্গে নিয়েই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে এখানে সাফারি পার্ক স্থাপন করা হবে।”

মৌলভীবাজারের ৬০ কি.মি. উত্তর-পূর্বে অবস্থিত সিলেট বন বিভাগের জুরি ফরেস্ট রেঞ্জের লাঠিটিলা পাথারিয়া হিল রিজার্ভ ফরেস্টের (পিএইচআরএফ) একটি অংশ। পিএইচআরএফ বাংলাদেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলের ছয়টি ট্রান্স বর্ডার ফরেস্ট রিজার্ভের একটি।

পাথারিয়া পাহাড় এ জেলার বড়লেখা উপজেলায় অবস্থিত, যার পূর্ব নাম “আদম আইল”। এই পাহাড়ের উপর থেকে পতিত পানিতেই সৃষ্টি হয়েছে মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

আমাদের মোবাইল এপ্পসটি ডাউনলোড করুন