প্রচ্ছদ

পোষা প্রাণীর স্বাস্থ্য ঠিক রাখার টিপস

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:০৬

বাংলা সংবাদ ডেস্ক

মানুষের মত পোষা প্রাণীদের বিশেষ করে কুকুর এবং বিড়ালের পরিপাকতন্ত্র অর্থাৎ হজম প্রক্রিয়া তাদের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার একটি বড় অংশ নিয়ে গঠিত। যা তাদের স্বাস্থ্যকে ঠিক রাখতে সাহায্য করে।

সেজন্য পোষা প্রাণীকে ভালোমানের খাবার খাওয়ানোর সাথে সাথে তার পরিপাকতন্ত্র সঠিকভাবে কাজ করছে কি না, সে বিষয়ে নজর রাখা গুরুত্বপূর্ণ। কুকুর, বিড়াল এবং মানুষের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার প্রায় ৭০ শতাংশ পরিপাকতন্ত্রে বাস করে। ভালো ব্যাকটেরিয়া অন্যান্য অণুজীবের সাথে একসাথে পরিপাকতন্ত্রে খাদ্য পরিপাক করতে সাহায্য করে। যখন ভাল ব্যাকটেরিয়া খারাপ ব্যাকটেরিয়ার মুখোমুখি হয়, তখন তারা ইমিউন সিস্টেমের শ্বেত রক্তকণিকার সাথে লড়াই করে। সেজন্য পরিপাকতন্ত্রের মধ্যে ভাল ব্যাকটেরিয়ার সঠিক ভারসাম্য থাকা গুরুত্বপূর্ণ।

স্বাস্থ্য সমস্যার উপর নজর দিন

হজমের সমস্যা, যেমন গ্যাস, ডায়রিয়া, ঘন ঘন শেডিং, অত্যধিক আঁচড় এবং ফুসকুড়ি পোষা প্রাণীর পরিপাকতন্ত্রের দুর্বল স্বাস্থ্যের সুস্পষ্ট লক্ষণ হতে পারে। তাছাড়া যেসব কুকুর এবং বিড়ালের পরিপাকতন্ত্রের স্বাস্থ্য খারাপ তাদের বমি হতে পারে এবং ওজন  কমে যেতে পারে। এজন্য দ্রুত পশুচিকিত্সকের সাথে কথা বলে নিন।

দিনের শুরুতে ভালো মানের খাবার দিন

দিনের শুরুতে পোষা প্রাণীকে ভালোমানের খাবার দিন। কারণ প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার পরিপাকতন্ত্রের স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করে। কখনোই আপনার খাবার পোষা প্রাণীকে খেতে দিবেন না। কারণ মানুষের খাবার শুধু পোষা প্রাণীর পরিপাকতন্ত্রের ক্ষতিই করতে পারে না, বরং ওজন বৃদ্ধিসহ অন্যান্য সমস্যাও হতে পারে।

পর্যাপ্ত পানীয় জলের ব্যবস্থা রাখুন

পর্যাপ্ত পানীয় জলের ব্যবস্থা রাখুন যাতে করে আপনার পোষা কুকুর বা বিড়াল দিনের বেলা যথেষ্ট পানি পান করতে পারে। পানি কেবল হজমে সহযোগিতায় করে না, এটি পরিপাকতন্ত্রে ভাল ব্যাকটেরিয়ার ভারসাম্য বৃদ্ধিতেও সাহায্য করতে পারে।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের সাথে কানেক্টেড থাকুন

আমাদের মোবাইল এপ্পসটি ডাউনলোড করুন